ভাষাসমূহ

ফ্রিকোয়েন্ট আস্কড কোয়েশ্চেন – যে সব প্রশ্নের সম্মুখীন আমরা প্রায়শই হয়ে থাকি

বাড়ির পরিবেশ সব কিছুর উপরেই প্রভাব ফেলে এবং তা উপযুক্ত না হলে রোগ – ব্যাধি ছড়াবেই। বাড়ির পরিবেশ সংক্রান্ত সমস্যা বাচ্চাদের এবং বয়স্কদের তো বটেই বাড়ির সকলকেই ভোগাতে পারে।

ভিওসি হল কার্বন বাহিত একটি যৌগ যা অতি দ্রুত বাতাসে মিশে যায়। বাতাসে মিশে আন্যান্য পদার্থের সংস্পর্শে এসে সেটি ওজোন উৎপন্ন করে যা বায়ু দূষণ এবং একাধিক অসুস্থতার কারণ। যেমন শ্বাসকষ্ট, মাথার যন্ত্রণা, চোখ ও নাক জ্বালা ইত্যাদি। এমনও কিছু ভিওসি আছে যার প্রভাবে কিডনি ও লিভারের সমস্যা, এমনকি ক্যান্সার পর্যন্ত হতে পারে।

রঙ, বার্ণিশ, ঘর পরিষ্কার রাখার জিনিস(তরল), আঠা, কালি ও বিভিন্ন ইমারতি দ্রব্যে ভিওসি থাকে।

ভিওসির জন্য শিশুদের ফুসফুসে সংক্রমণ, অ্যালার্জি, চোখ-নাক জ্বালা, চোখ লাল হওয়া, কাশি এবং গলার সংক্রমণ হতে পারে। এছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল, শিশুদের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতার উপরেও বিরূপ প্রভাব ফেলে ভিওসি। তিনটি প্রধান কারণে VOC উদ্বেগ একটি শিশুর জন্য মারাত্মক হতে প্রমাণ করতে পারে আছে:

একটা বাচ্চা ফুসফুস এখনও উন্নয়নশীল এবং সেইজন্য হয় একটি পূর্ণবয়স্ক এর চেয়ে বেশি সংবেদনশীল।বিকাশের এই পর্যায়ে, ফুসফুসের টিস্যু আরো সহজে ক্ষতিগ্রস্ত এবং এমনকি সাবালকত্ব মধ্যে পুনরুদ্ধার করার সম্ভাবনা কম।

একটি শিশুর এর ‘ফুসফুস সামগ্রিক আকার তাদের খুব বায়ুর গুণমান দুর্ভাগ্য সমর্থ ভুলবেন না।কি প্রাপ্তবয়স্ক ফুসফুস একজোড়া অনুন্নত ফুসফুস বিপুল সমস্যা গঠন করবে বায়ু দূষণের একটি ছোট পরিমাণ উপস্থাপনের।কারণ তাদের ছোট ফুসফুস ক্ষমতার, শিশুদের একটি পূর্ণবয়স্ক তুলনায় প্রতি ঘন্টায় আরো অনেক নিঃশ্বাসের নিতে, তাই তারা বায়ুর গুণমান সমস্যার বৃহত্তর এক্সপোজার আছে।

শিশুদের বাড়ীতে তাদের সময় অধিকাংশ ব্যয় এবং তারা সবচেয়ে প্রবন জৈবিকভাবে হয়।বাচ্চাদের লাশ প্রাপ্তবয়স্কদের চেয়ে পরিবেশগত Tox-ইনগুলি এর আনুপাতিক বৃহত্তর পরিমাণে নেওয়া, এবং তাদের দ্রুত উন্নয়নশীল অঙ্গ বিশেষত দূষণকারী ঝুঁকিতে আছে।যেহেতু শিশু স্বাভাবিকভাবেই হামাগুড়ি এবং মেঝে উপর খেলা, তারা যেখানে দূষণকারী জমা সরাসরি যোগাযোগ, এবং তারা তাদের স্বাভাবিক হাত টু মুখ আচরণ এবং খেলার মাধ্যমে তাদের পাকস্থলিতে গ্রহণ করার সম্ভাবনা বেশি।ক্ষতিকারক রোগ যে ঘটতে পারে কিছু উবু রক্ত ​​সীসা মাত্রা, হাঁপানি, এবং অন্যান্য যেমন শ্বাসযন্ত্রের রোগ হয়।

ভিওসির প্রভাবে একজন বয়স্ক ব্যক্তির ফুসফুসের কার্যক্ষমতা পুরোপুরি নষ্ট হতে পারে। তার ফলস্বরূপ তিনি ক্রনিক অবস্ট্রাক্টিভ পালমনারি রোগের শিকার হন।

গর্ভাবস্থায় শরীরের উপর ভিওসির প্রভাব তো মারাত্মক। সাধারণ মহিলাদের ক্ষেত্রে (যিনি গর্ভবতী নন) প্রাথমিক ভাবে ঋতুচক্রের সমস্যা ও পরে গর্ভাবস্থায় উচ্চ রক্তচাপজনিত সমস্যা হতে পারে।

উচ্চমাত্রার ভিওসির প্রভাবে পুরুষ-মহিলা নির্বিশেষে যে কেউ বন্ধ্যাত্বের শিকার হতে পারেন। ভিওসির মধ্যে থাকা পারক্লোরিথিলিন মায়ের দুধের মাধ্যমে বাচ্চার শরীরে প্রবেশ করতে পারে।

বাতাসে অত্যধিক মাত্রায় ভিওসি থাকলে গর্ভপাত, কম ওজনের শিশুর জন্ম, জন্মগত কিছু সমস্যা এবং শিশুর ক্যানসার পর্যন্ত হতে পারে।

হাওয়া-বাতাস ঢোকার পর্যাপ্ত জায়গা রাখুন। ঘরের ভিতর আর্দ্রতা জমতে দেবেন না। বাড়িঘর সংস্কারের সময় প্রচুর নোংরা বের হয়। ধুলো ওড়ে। এক্ষেত্রে যথাযথ ব্যবস্থা নিন। এই ধুলো ময়লার হাত থেকে রেহাই পেতে ছোট খাটো খরচ করুন, আপনি নিজেই তাতে লাভবান হবেন। বাথ্রুম ও রান্নাঘরে অবশ্যই এক্সস্ট ফ্যান লাগান। এর ফলে বাড়ির ভিতরের অপ্রয়োজনীয় জলীয় বাষ্প ও আর্দ্রতা দুটোই বেরিয়ে যাবে।

সবুজ রঙের সিল দেখে তবেই কিনুন। ওই সবুজ রঙের সিল আপনাকে নিশ্চয়তা দেবে, যে পরিবেশ সংক্রান্ত বিধি নিষেধ মেনেই এই রঙ তৈরি করা হয়েছে। সবুজ সিল যুক্ত নন -ফ্ল্যাট রঙে ভিওসির মাত্রা লিটার প্রতি ১০০ গ্রামের কম এবং ফ্ল্যাট ফিনিশ রঙের ক্ষেত্রে ভিওসির মাত্রা লিটার প্রতি ৫০ গ্রামের কম। সবুজ সিল যুক্ত প্রাইমার এবং ফ্লোর পেন্টের ক্ষেত্রে ভিওসির মাত্রা লিটার প্রতি ১০০ গ্রামের কম। আবার রিফ্লেক্টিভ ওয়াল কোটিং এর ক্ষেত্রে ভিওসির মাত্রা লিটার প্রতি ৫০ গ্রামের সামান্য বেশি। এছাড়াও যারা কম ভিওসি যুক্ত রঙ তৈরি করেন, তাদের অবশ্যই ভিওসি সংক্রান্ত মানপত্র প্রাপক হতে হয়।

ল্যাটেক্স এবং ফ্ল্যাট- রঙিন তেল ভিত্তিক এবং সমস্ত অন্যান্য পেইন্টস
কম - VOC পেইন্ট < 250 গ্রাম / এল < 380 গ্রাম / এল
VOC মুক্ত রঙ < 5 গ্রাম / এল

SEND US YOUR QUERIES

আপনার প্রশ্ন পাঠান